করোনায় আক্রান্ত ৭৮৫৭৯৭, মৃত্যু ৩৭৮১৬ জন

গাইবান্ধা টাইমসগাইবান্ধা টাইমস
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:১৬ PM, ৩১ মার্চ ২০২০

বিশ্বে লাফিয়ে বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা, যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন দেশ। ওয়ার্ল্ডোমিটারের সর্বশেষ তথ্য বলছে, সবমিলিয়ে ২শ দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়েছে করোনা মহামারি।

মঙ্গলবার সকাল ১০টা পর্ন্ত, বিশ্বের সবমিলিয়ে ৭ লাখ ৮৫ হাজার ৭৯৭ জন কেরানায় আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ লাখ ৬৫ হাজার ৬০৭ জন। এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও প্রায় ৬ লাখ মানুষ (৫ লাখ ৮২ হাজার ৩৭৪ জন)। এদের মধ্যে ২৯ হাজার ৪৮৮ জনের অবস্থা সঙ্কটাপন্ন। অর্থাৎ মৃত্যুর মিছিলে যোগ হচ্ছেন আরও প্রায় ৩০ হাজারের মতো মানুষ।

গোটা বিশ্বে কোভিড-১৯ ভাইরাসে মঙ্গলবার সকাল পর্ন্ত মারা গেছেন সবমিলিয়ে ৩৭ হাজার ৮১৬ জন। এদের মধ্যে সোমবার একদিনে মারা গেছেন ৩ হাজার ৭১৮ জন। আর মঙ্গলবার সকালে মারা গেছেন আরও ৩৩ জন।

বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত দেশগুলোর মধ্যে এখনও তালিকার শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার দেশটিতে আরও ২০ হাজার ৩৫৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এটি কেবল মার্কিন মুলুকে নয়, বিশ্বের যে কোনও দেশে এক দিনে সর্বোচ্চ সংখ্যাক আক্রান্ত হওয়ার রেকর্ড।

মঙ্গলবার সকাল পর্ন্ত (বাংলাদেশ সময়) আক্রন্ত হয়েছেন আর ১০৮২ জন। ফলে দেশটিতে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১ লাখ ৬৪ হাজার ২৫৩তে গিয়ে দাঁড়ালো। সেখানে করোনায় মারা গেছে মোট ৩১৬৬ জন। এদের মধ্যে সোমবার গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে ৫৭৩ জন।

করোনায় সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছে ইতালিতে। দেশটিতে সোমবার পর্যন্ত ১১ হাজার ৫৯১ জন প্রাণ হারিয়েছেন। আক্রান্ত ১ লাখ ১৭ হাজার ৩৯ জন।

সোমবার স্পেনে মারা গেছে আরও ৯১৩ জন।একদিনে দেশটিতে এটি সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। ফলে সেখানে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৭ হাজার ৭১৬ জন। ইউরোপের এই দেশটিতে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮৩ হাজার ৯৫৬ জন।

গত ডিসেম্বরের শেষ নাগদ চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে উত্থানের পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে এই ভয়ঙ্কর ভাইরাস। দেশটিতে মঙ্গলবার সকালেও নতুন করে ৭৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে মোট আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮১ হাজার ৫১৮ জন। চীনে মোট মৃত্যু ৩ হাজার ৩০৫ জন। মঙ্গলবার সকালেই মারা গেছেন আরও পাঁচজন।

আক্রান্তের সংখ্যায় পঞ্চম স্থানে আছে জার্মানি। এখানে মোট আক্রান্ত ৬৬ হাজার ৪৮৮৫ জন। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৪৫ জনে। এদের মধ্যে সোমবার গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১০৪ জন।

ফ্রান্সে সোমবার করোনায় নতুন করে মারা গেছেন আরও ৪১৮ জন। ফলে দেশটিতে মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৩০৫ য়ে। এখানে মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৪ হাজার ৫৫০ জন।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানে আক্রান্তের সংখ্যা ৪১ হাজার ৪৯৫ জন, আর মারা গেছেন দুই হাজার ৭৫৭ জন। এদের মধ্যে সোমবার মারা গেছেন ১১৭ জন এবং নতুন করে করোনয়ি আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৩ হাজারের বেশি মানুষ।

যুক্তরাজ্যে আক্রান্তের বেড়ে ২২ হাজার ছাড়িয়েছে (২২ হাজার ১৪১ জন), মৃত্যু ছাড়িয়েছে ১৪ শ’। দেশটিতে সোমবারই আক্রান্ত হয়েছেন ২৬১৯ জন এবং মারা গেছেন আরও ১৮০ জন।

ইউরোপের আরেক দেশ বেলজিয়ামে সোমবার নতুন আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৬৩ জন এবং মারা গেছেন ৮২ জন। ফলে দেশটিতে মোট করোনায় আক্রন্তের সংখ্রা বেড়ে হয়েছে ১১ হাজার ৮৯৯ জন এবং মোট মৃত্যু ৫১৩ জন।

সুইজারল্যান্ডে মোট মৃত্যু ৩৫৯ জন এবং মোট আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ১৬ হাজার (১৫ হাজার ৯২২ জন)। ইউরোপের আরেক দেশ নেদারল্যান্ডসে মোট আক্রান্ত ১১ হাজার ৭৫০ জন এবং মোট মারা গেছেন ৮৬৪ জন।

প্রসঙ্গত গত ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ চীনের হুবেইপ্রদেশের রাজধানী উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। চীনে ইতিমধ্যে ৮০ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তবে মার্চের শুরুর দিক থেকেই সেখানে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব কমতে শুরু করেছে। উহানের পরিস্থিতিও অনেক উন্নত হয়েছে। যে কারণে দীর্ঘ দু মাস ধরে অবরুদ্ধ থাকার পর শনিবার শহরটি আংশিকভাবে খুলে দেয়া হয়েছে।

সূত্র: ওয়ার্ল্ডোমিটার

আপনার মতামত লিখুন :